ক্যাম্পাস

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শুরু ১৮ এপ্রিল

জবি প্রতিনিধি:

নানা নাটকীয়তার পর অবশেষে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী ১৮ এপ্রিল থেকে শিক্ষার্থীরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। চলবে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত। ২০ মে পরীক্ষা শুরু হয়ে ৩ জুন শেষ হবে।

রোববার (১৬ এপ্রিল) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের এক জরুরি সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সমন্বিত ভর্তি কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বিগত বছরের মতো এবারও ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ই গুচ্ছ পদ্ধতিতে থাকছে। সোমবার গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞাপন প্রকাশ করা হবে। ১৮ এপ্রিল দুপুর ১২টা থেকে থেকে শুরু হবে ভর্তির আবেদন, যা ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে।

আগের পদ্ধতিতে এবারও পরীক্ষা হবে জানিয়ে অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন বলেন, ভর্তি পদ্ধতি, আবেদন যোগ্যতা সবকিছুই আগের মতো থাকছে। আগামী ২০ মে থেকে শুরু হবে এবারের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা। ওই দিন মানবিক অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা হবে। এছাড়া, বিজ্ঞান বিভাগের ২৭ মে এবং ৩ জুন ব্যবসায় শিক্ষা শাখা অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা হবে।

তিন ধাপেই ভর্তি কার্যক্রম শেষ হবে উল্লেখ তিনি বলেন, ৮ জুনের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। আমরা দ্রুতই কেন্দ্রীয় মেধাক্রম প্রস্তুত করব। সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষায় সুযোগ পাওয়াদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন ২০ জুন থেকে শুরু হয়ে চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। তিন রাউন্ডের মধ্যেই শেষ হবে ভর্তি কার্যক্রম।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কষ্ট লাঘব করতে চালু হয় গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা। ২২টি বিশ্ববিদ্যালয় এই পদ্ধতিতে পরীক্ষায় অংশ নেয়। তবে দুবছর নো যেতেই ভর্তি কার্যক্রমে দীর্ঘসূত্রিতা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চাহিদা অনুযায়ী যোগ্য শিক্ষার্থী না পাওয়াকে কারণ দেখিয়ে গুচ্ছ থেকে বেরিয়ে যেতে চায় জগন্নাথ, ইসলামী এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। এ নিয়ে আন্দোলনেও নামে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। কয়েক দফায় আলোচনা করে নিজস্ব ভর্তি কমিটিও করে বিশ্ববিদ্যালয়টি। এমতাবস্থায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের নিয়ে ইউজিসিতে সভা করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরপরও বিষয়টি নিয়ে সুরাহা না হওয়ায় ১৫ এপ্রিল রাষ্ট্রপতির নির্দেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে একটি প্রজ্ঞাপনে ২২ বিশ্ববিদ্যালয়কে গুচ্ছে থাকার আদেশ দেওয়া হয়। এর একদিন পরেই গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হলো।

আদেশে বলা হয়, রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আচার্যের অভিপ্রায় অনুযায়ী বিগত সময়ে যেসব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় যুক্ত ছিল তাদের অংশগ্রহণে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করতে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনকে দায়িত্ব প্রদান করা হলো। একইসঙ্গে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে একক ভর্তি পরীক্ষার আওতায় নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে ইউজিসিকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page