ক্যাম্পাস

১৮৫ ঘন্টার অনশন ভাঙ্গলেন জাবি শিক্ষার্থী প্রত্যয়

জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হলের সামনে তিন দফা দাবি নিয়ে অনশনে থাকা শিক্ষার্থী সামিউল ইসলাম প্রত্যয় হলের প্রাধ্যক্ষের লিখিত আশ্বাসের ভিত্তিতে ১৮৫ ঘন্টার অনশন কর্মসূচি থেকে সরে এসেছেন।

বৃহস্পতিবার (৮ জুন) সকাল সাড়ে ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলের প্রাধ্যক্ষ ড. মো. সাব্বির আলম নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রত্যয়ের দাবিগুলো মেনে নেওয়ার লিখিত আশ্বাস দেন এবং তাকে হলে ফিরে যেতে বলেন। এর প্রেক্ষিতে প্রত্যয় হল প্রাধ্যক্ষের উপস্থিতিতে পানি পানের মাধ্যমে অনশন ভাঙ্গেন এবং হল অফিসের সামনে থেকে অবস্থান ছেড়ে দেন।

প্রত্যয়ের ছয় দফা শর্তের দাবির প্রেক্ষিতে প্রাধ্যক্ষ ড. মো. সাব্বির আলমের লিখিত আশ্বাসে উল্লেখ ছিল – হলের সকল কক্ষের আসন সংখ্যার তালিকা করা, হলের ফাঁকা কক্ষগুলো ১৫ দিনের মধ্যে চিহ্নিত করা, মেয়াদোত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের আসনগুলোতে বৈধ শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ দেওয়া, আগামী ৩০ দিনের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ সকল শিক্ষার্থীকে হল ত্যাগে করতে বাধ্য করা এবং প্রত্যেকটা কাজের আপডেট দেওয়া।

এমনকি লিখিত আশ্বাসে আরও বলেন নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজগুলো করতে না পারলে হল প্রাধ্যক্ষ পদত্যাগ করবেন।

এর আগে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সামিউল ইসলাম প্রত্যয় হলের গণরুম বিলুপ্তি করা, মিনি গণরুম উচ্ছেদ করা এবং অছাত্রদের হল থেকে বের করা – এই তিন দফা দাবিতে গত ৩১ মে রাত থেকে অনশন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করে।

এর মধ্যে নানা ভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. নূরুল আলম, হলের প্রভোস্টসহ অনেকে অনশন ও অবস্থান কর্মসূচি ভাঙ্গতে বলেন কিন্তু তাদের মৌখিক আশ্বাসে কোন ভরসা না পাওয়ায় প্রত্যয় তিন দফা দাবি আদায় ও অবস্থান কর্মসূচি পালনে ‘অটল থাকা’র সিদ্ধান্ত নেন। অবশেষে দীর্ঘ প্রায় ১৮৫ ঘন্টা পর হল প্রাধ্যক্ষের লিখিত আশ্বাসের ভিত্তিতে এ কর্মসূচি ভাঙ্গেন প্রত্যয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page