ক্যাম্পাস

সচেতনতা থেকেই অনেক বড় দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব: উপাচার্য

খুবি প্রতিনিধি:

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন করে স্থাপন করা হলো অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ভবনে বিদ্যমান অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রগুলো পরিবর্তনের পর নতুন করে আবারও এ যন্ত্র স্থাপন করা হলো।

সোমবার (১৯ জুন) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনে উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র স্থাপনের কাজ উদ্বোধন করেন।

এসময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি বলেন, আগুন নেভাতে সহজ এবং দ্রুত কার্যকরী মাধ্যম অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র। এ যন্ত্রগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ভবনের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে স্থাপন করা হয়েছে। পূর্বে থাকা অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রগুলো পরিবর্তন করে নতুন এই যন্ত্রগুলো স্থাপন করা হচ্ছে, যাতে দুর্ঘটনা ঘটলে সহজেই আগুন নেভানো সম্ভব হয়। তবে যেকোনো দুর্ঘটনা রোধে আমাদের সচেতন হওয়া জরুরি। সচেতনতা থেকেই অনেক বড় দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব। তিনি আরও বলেন, ক্যাম্পাসের অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রগুলোর নিয়মিত চেকিং এবং এটি ব্যবহারে আরও দক্ষ করে তুলতে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রশিক্ষণ অব্যাহত থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস, সংশ্লিষ্ট কমিটির সভাপতি স্থাপত্য ডিসিপ্লিনের সহযোগী অধ্যাপক ড. এটিএম মাসুদ রেজা, উপাচার্যের সচিব সঞ্জয় সাহা, কমিটির সদস্য সচিব উপ-রেজিস্ট্রার মো. আব্দুল্লাহ আল মামুনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

প্রথম দিনে এ ভবনের প্রতিটি ফ্লোরে একাধিক স্থানে নতুন এ যন্ত্র স্থাপন করা হয়েছে। ধাপে ধাপে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবন, আবাসিক হল, সেন্ট্রাল ল্যাবরেটরি, লাইব্রেরি, ক্যাফেটেরিয়াসহ যে সকল স্থানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীদের চলাচল সবখানেই অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র স্থাপন করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page