ক্যাম্পাসলিড নিউজ

জিপিএ শর্ত শিথিল ও মানোন্নয়ন পরীক্ষার সুযোগ চেয়ে মানববন্ধন

সোহরাওয়ার্দী কলেজ প্রতিনিধি:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা জিপিএ নীতির জটিলতা সমাধান সহ অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের মানোন্নয়নের সুযোগ চেয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

আজ বুধবার (২ আগষ্ট) বেলা ১২টায় ইডেন মহিলা কলেজের সামনে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

জানা যায় যে, অনার্স (২০-২১) সেশন ১ম বর্ষের ২০২১ সনের অনেক ডিপার্টমেন্ট এর রেজাল্ট এখন‌ও প্রকাশ করা হয় নি। এছাড়াও যেসব ডিপার্টমেন্ট এর রেজাল্ট প্রকাশিত হয়েছে তাঁরা পুনঃ নীরিক্ষার জন্য আবেদন করেন। সেই পুনঃ নিরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশ না করেই অনার্স (২১-২২) সেশন ১ম বর্ষের ২০২২ সনের পরীক্ষার ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ।

এতে করে যারা অকৃতকার্য রয়েছে কিংবা রয়ে গেছে তাঁদের একটা দোটানার মধ্যে থাকতে হচ্ছে।

এছাড়াও ফলাফল অপ্রকাশিত ডিপার্টমেন্ট এর শিক্ষার্থীরা যদি কোনো বিষয়ে অকৃতকার্য হয় তবে তাঁদের আবার ২১-২২ সেশনের শিক্ষার্থীদের সাথে পরীক্ষায় বসতে হবে। এক্ষেত্রে তাঁদের এক মাসের মধ্যে প্রস্তুতিহীন পরীক্ষা দিতে হবে।

এছাড়াও অনেক শিক্ষার্থীই পুনঃ নীরিক্ষার আবেদন করেছেন। তাদের অর্থ ১ সাবজেক্ট প্রতি ৮২৩/= টাকা এবং শ্রম দুটোই নষ্ট হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে পুনঃ নীরিক্ষা আবেদন কারী শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে শিক্ষার্থীরা বলেন, “বিগত সময়ের তথ্যমতে অন্য সেশনের পরীক্ষার ফরম পূরণের আগে পুনঃ নীরিক্ষা আবেদন করে শিক্ষার্থীরা। অথচ পরীক্ষার ফরম পূরণ সমাপ্ত হওয়ার কিছু দিন পর পুনঃ নীরিক্ষার ফলাফল প্রকাশ করে। এতে করে আমাদের অর্থ এবং শ্রম দুটোই নষ্ট হয়। চলমান সময়ে ও এই সমস্যা তীব্র দেখা দিয়েছে।”

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, “জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় যেখানে পুনঃ নীরিক্ষার আবেদনের ফলাফল ১ মাসের মধ্যে প্রকাশ করে সেখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ২-৩ মাসে ও প্রকাশ করে না।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ কেমন সিষ্টেম যা সম্পর্কে শিক্ষার্থীরা অবগত নেই।”

এছাড়াও শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় প্রমোশন রুলস যথাযথ ভাবে পূরণ করা হয়। অথচ ৯০ দিনের মধ্যে সকল বিভাগের ফলাফল প্রকাশ। যথাযথ সময়ে পরীক্ষা, একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রণয়ন,পুনঃ নীরিক্ষার ফলাফল যথাযথ সময়ে প্রকাশ ও সমন্বয় ফলাফল যথাযথ সময়ে প্রকাশে কতৃপক্ষের কোন পদক্ষেপ নেই।”

বর্তমানে তাঁদের দাবি জিপিএ শর্তের জন্য অনেক শিক্ষার্থী ঝড়ে যাচ্ছে এই জিপিএ শর্ত শিথিল করতে হবে।

উল্লেখ্য যে, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ:

(প্রমোশনের জন্য) ১ম বর্ষ থেকে ২য় বর্ষ – জিপিএ ২.০০ লাগবে। ২য় বর্ষ থেকে ৩য় বর্ষ – সিজিপিএ ২.২৫ লাগবে। ৩য় বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ – সিজিপিএ ২.৫০ লাগবে।

বিজ্ঞান অনুষদ:

১ম বর্ষ থেকে ২য় বর্ষ – জিপিএ ২.০০ লাগবে। ২য় বর্ষ থেকে ৩য় বর্ষ – সিজিপিএ ২.০০ লাগবে। ৩য় বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ – সিজিপিএ ২.০০ লাগবে

কলা অনুষদ:

১ম বর্ষ থেকে ২য় বর্ষ – জিপিএ ২.০০ লাগবে। ২য় বর্ষ থেকে ৩য় বর্ষ – জিপিএ ২.০০ লাগবে। ৩য় বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ – জিপিএ ২.০০ লাগবে।

বানিজ্য অনুষদ:

১ম বর্ষ থেকে ২য় বর্ষ – জিপিএ ২.০০ লাগবে। ২য় বর্ষ থেকে ৩য় বর্ষ – সিজিপিএ ২.২৫ লাগবে। ৩য় বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ – সিজিপিএ ২.৫০ লাগবে।

অধিভুক্তি ৭ বছরে ও বিভিন্ন সমাধান পায়নি সাধারণ শিক্ষার্থীরা। আদৌ পুনঃ নীরিক্ষার ফলাফল কখন পাবে এবং অপ্রকাশিত ডিপার্টমেন্ট এর ফলাফল কবে প্রকাশ হবে এই বিষয়ে কলেজ ও ডিপার্টমেন্ট থেকে কোনো সঠিক তথ্য পাচ্ছে না শিক্ষার্থীরা। এতে করে শিক্ষার্থীরা বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে। পরবর্তী বর্ষের ফরম পূরণ করবে নাকি পুনঃ নীরিক্ষা ও রেজাল্ট প্রকাশের জন্য অপেক্ষা করবে এটা নিয়ে দেখা দিয়েছে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংশয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page