ক্যাম্পাসলিড নিউজ

ছাদফুটো বাসে ছাতা ধরে চলাচল করছে যবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

যবিপ্রবি প্রতিনিধি:

যখন মুষলধারে বৃষ্টিতে নাকাল দেশের অধিকাংশ অঞ্চল ঠিক তখনই বৃষ্টি বিলাশের সুযোগ করে দিয়েছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) প্রশাসন। সম্প্রতি এক ভিডিওতে দেখা গেছে যবিপ্রবির ‘শাপলা’ নামের বাসের ছাদ থেকে টপ টপ করে পড়ছে পানি। আর বৃষ্টির পানি থেকে রক্ষা পেতে বাসের মধ্যেই শিক্ষার্থীরা ছাতা মেলে ধরেছেন।

ফিটনেসবিহীন এসব বাস নিয়ে ক্ষোভ ও অভিযোগের শেষ নেই শিক্ষার্থীদের। যেকোন সময় অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতে পারে বলে মনে করছে শিক্ষার্থীরা। এতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন তারা।

এছাড়াও দেখা যায় বাসের সামনের হেডলাইট নষ্ট। বাসের ফ্যান-লাইট সহ বিভিন্ন অংশ নষ্ট ও ভঙ্গুর। বাসগুলোর কয়েকটিতে গ্লাস ভাঙা সহ নানা সমস্যায় জর্জরিত। এছাড়া অধিকাংশ বাসের সিট নড়বড়ে। এতে যাতায়াতে ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে শিক্ষার্থদের।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী তন্ময় দত্ত বলেন, আজকে শহর থেকে আসার সময় শাপলা বাসে উঠি। উঠে দেখি বাসের অবস্থা খুবই খারাপ। ভাঙ্গা ছাদের জন্য বাসের সেলিং দিয়ে অনবরত জমে থাকা বৃষ্টির পানি পড়ছে। একটা অংশের পুরো সেলিং নষ্ট। সেখান থেকে টপ টপ করে পানি পড়ছিলো। পানির জন্য এক সাইডের সবগুলা সিট ভিজে ছিল যার কারণে কেউ ঠিকমতো বসে আসতে পারেনি। অনেকেই দাড়িয়ে আসছে। অনেকেই বাসের মধ্যে পানি থেকে বাঁচতে ছাতা ব্যবহার করা শুরু করে। এ বিষয়ে শাপলা বাসের চালককে জিজ্ঞাসা করলে ওনি বলেন, অনেক বার প্রশাসন কে অবগত করলেও তারা কোন ব্যবস্থা নেননি। এই বাস রাতে চলাচলের জন্য উপযুক্ত না। হেড লাইট নষ্ট, অনেক আগে থেকে বাসের ফ্যান গুলাও নষ্ট। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা কিছুই করতে পারবো না যতক্ষন না পর্যন্ত প্রশাসন কিছু করবে।’

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক ড. মো. জাফিরুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page