ক্যাম্পাসলিড নিউজ

ড. ইউনুসের পক্ষে চিঠি, দেশের বিচার ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করেছেন বিশ্বনেতারা

ইবি শিক্ষক সমিতি

ইবি প্রতিনিধি:

বাংলাদেশের শ্রম আইনে অর্থনীতিবিদ ড. ইউনুসের বিরুদ্ধে চলমান মামলা স্থগিতের আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর ১৬০ বিশ্ব নেতার খোলা চিঠি প্রেরণের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শিক্ষক সমিতি। একইসাথে এই চিঠির মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থায় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দরা।

মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) সংগঠনটি সভাপতি অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. তপন কুমার জোদ্দার স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করা হয়।

বিবৃতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘একটি দেশের সরকার প্রধানের কাছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের বিশিষ্টজনদের এই ধরনের চিঠি স্বাভাবিক ঘটনা হলেও চিঠির বিষয়বস্তুতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বিস্মিত ও হতবাক হয়েছে। চিঠিতে তাঁরা বাংলাদেশের শ্রম আইনে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে চলমান মামলা স্থগিত করার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আহ্বান জানিয়েছেন। একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশের বিচার ব্যবস্থার ওপর এমন অযাচিত হস্তক্ষেপের বিষয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছে। বাংলাদেশের সংবিধানের ৯৪(৪) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বাংলাদেশের বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে বিচারকার্য পরিচালনা করে থাকে। কাজেই এধরনের চিঠি প্রদানের মাধ্যমে তাঁরা অনৈতিক, বেআইনি ও অসাংবিধানিকভাবে বাংলাদেশের স্বাধীন বিচার ব্যবস্থার ওপর হস্তক্ষেপ করেছেন বলে আমরা মনে করি।’

তারা আরও বলেন, ‘চিঠিতে স্বাক্ষরকারী ব্যক্তিবর্গ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের স্বার্থরক্ষায় আগ্রহী হলেও ড. ইউনূসের প্রতিষ্ঠান কর্তৃক শ্রমিকদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হওয়া এবং শ্রমিকদের মানবাধিকার ও আইনী সুরক্ষার বিষয়ে সম্পূর্ণ নিশ্চুপ থেকেছেন । এধরনের বিবৃতি আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা এবং বাংলাদেশের আইনে শ্রমিকদের প্রদত্ত অধিকার সংক্রান্ত বিধানাবলীর সম্পূর্ণ পরিপন্থী। তাছাড়া একই চিঠিতে বাংলাদেশের গণতন্ত্র এবং নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে যে ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে, তা স্বাধীন সার্বভৌম একটি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সরাসরি হস্তক্ষেপের সামিল।’

এছাড়া বিশ্বনেতাদের এই বিবৃতির পেছনে গোপন রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিহিত রয়েছে বলেও সংগঠনটির বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। পরিশেষে এর সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, স্বাধীন বিচার ব্যবস্থা এবং শ্রমিকদের অধিকারের বিষয়ে অধিকতর সম্মান প্রদর্শনের জন্য আহ্বান জানান নেতৃবৃন্দরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page