ক্যাম্পাসলিড নিউজ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মৌলবাদীদের আশ্রয় দেওয়া যাবে না : ইনান

রাবি প্রতিনিধি:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়কে (রাবি) শিবিরের টর্চার সেল থেকে শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি করেছে ছাত্রলীগ। তাই এখানে মৌলবাদীদের আশ্রয় দেওয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান।

আজ সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ২৬তম বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি। এসময় তিনি বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার সাথে সংগ্রাম ওতোপ্রোতো ভাবেই জড়িত। ছাত্রলীগের অজস্র ভাইয়ের রক্তে রঞ্জিত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজপথ। যারা বিশ্বিবদ্যালয়ের দায়িত্ব নিবে তারা যেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে। আর যারা দায়িত্ব পাবেন না তারা দায়িত্বপ্রাপ্তদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবেন। রাজশাহীর মাটিকে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের চেতনায় গড়ে তুলতে সবাই একসাথে কাজ করবে।

সম্মেলনে প্রাধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সংসদে নির্বাচন আসলেই নিজেদের জাতীয়বাদী পরিচয় দেওয়া একটা দল ইসলাম ধর্মকে ব্যবহার করে মৌলবাদী কর্মকাণ্ড চালাতে চায়। ছাত্রলীগে অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করতে হবে। এখানে অনেক পদপ্রার্থী আছে কিন্তু সবাইকে নির্বাচন করা সম্ভব না। কেন্দ্রীয় সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এ বিষয়ে আলোচনা করে ঠিক করবে। এছাড়া এসময় তিনি জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধে ভূমিকার সমালোচনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জয়পুরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, রাজশাহীতে ছাত্রলীগ করা আর মরুভূমিতে ফুলের বাগান করা একই কথা। জাতীয় রাজনীতিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রনেতার সংখ্যা খুবই সীমিত। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্ব খুবই কম। এসময় তিনি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন নেতৃত্বের বিষয়টি দেখার জন্য।

পদপ্রত্যাশী ছাত্রনেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি আরও বলেন, এমন নেতা হওয়ার চিন্তা করবেন না যেন আপনার আচরণে কোনো সাধারণ শিক্ষার্থী কষ্ট পায়।

সম্মেলন উদ্বোধন করে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা মৌলবাদীদের জায়গা দেয় না। রাবির ছাত্ররা কখনো মৌলবাদীদের সাথে আপোস করতে জানে না। স্বাধীনতা ও মৌলবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে ছাত্রলীগের ছেলেরা জীবন দিয়েছে। ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা উন্নত দেশ হিসেবে পরিচিত হব,সেই লক্ষ্য আমাদের কাজ করতে হবে। মিছিল মিটিংয়ে সীমাবদ্ধ না থেকে আমাদের নতুনত্ব নিয়ে আসতে হবে। প্রধানমন্ত্ৰী শেখ হাসিনা আমাদের সামনে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের স্বপ্ন দেখাচ্ছে, সেই স্বপ্ন পূরণে আমাদের সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসন সমস্যা সমাধানে প্রশাসনকে আহ্বান জানান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুর সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য, যুব মহিলা লীগের সদস্য ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীল বারী, উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন রনি, উপ-কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক মোঃ সাব্বির হোসেন, সহ-সম্পাদক আদনান হোসেন প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page