ক্যাম্পাসলিড নিউজ

ইবির প্রধান ফটকে ট্রাক চাপায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত

ইবি প্রতিনিধি:

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রধান ফটকের সামনে ট্রাক চাপায় সাইফুল ইসলাম (৩৩) নামে এক মোটর সাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন।

শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে এই দূর্ঘটনাটি ঘটে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. ছোয়া ঈসরাইল নিহতের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। নিহত সাইফুল ইসলাম ঝিনাইদের মহিষপুর উপজেলার মহিষাকুন্ডু গ্রামের আকুল মন্ডলের ছেলে। আহত ব্যক্তি রাজু মন্ডলের বাড়িও একই এলাকায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঝিনাইদহ গামী একটি মোটর সাইকেল প্রধান ফটকের সামনে স্পিড ব্রেকারের সামনে এসে ব্রেক চাপলে মোটর সাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুই আরোহী সহ রাস্তার উপর গিয়ে পড়ে। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের নিচে পিষ্ট হয়ে নিহত সাইফুল গুরুতর আহত হন। আহত অবস্থায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় পরে সেখান থেকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠানো হলে পথেই তিনি মারা যান।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. ছোয়া ঈসরাইল বলেন, ‘হাসপাতালে নিয়ে আসার পূর্বেই সাইফুলের মৃত্যু হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে দুর্ঘটনায় বুকে আঘাত পেয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।’

এদিকে ঘটনার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ট্রাক চালকসহ ট্রাকটিকে আটক করে মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। প্রায় ৪৫ মিনিট মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন তারা।
এসময় ওই ট্রাকটির সামনের গ্লাস ভাঙচুর করেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশ ও প্রক্টরিয়াল বডি ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তারা তাদের অবস্থান ত্যাগ করেন।

শিক্ষার্থীরা জানান, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান পাঠকের সামনে স্পিড ব্রেকারের নাজুক অবস্থার কারণে এর আগেও এখানে অনেক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে দ্রুত স্পিড ব্রেকার মেরামত করা উচিত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ইয়ামিন মাসুম বলেন, ‘দূর্ঘটনার খবর পেয়ে তৎক্ষনাৎ ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। যিনি ভিক্টিম তাকে সাথে সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে এম্বুল্যান্সে করে ঝিনাইদহে পাঠানো হয়েছে।’

এ বিষয়ে ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আননূর যায়েদ বিপ্লব বলেন, ‘দূর্ঘটনার বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিক গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে এবং ড্রাইভার পুলিশ হেফাজতে আছেন।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page