ক্যাম্পাসলিড নিউজ

জাবিতে ধর্ষকের বিচারের দাবিতে ‘নিপীড়ন বিরোধী মঞ্চ’র মিছিল-সমাবেশ

জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ধর্ষকদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেছে ‘নিপীড়ন বিরোধী মঞ্চ’।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২ টায় বিশ্ববিদয়ালয়ের মুরাদ চত্বর থেকে এ মিছিল শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের সামনে গিয়ে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সমাবেশে নিপীড়ন বিরোধী মঞ্চের আহ্বায়ক অধ্যাপক পারভীন জলি বলেন, উপাচার্য মহোদয় নিজে বলে থাকেন তিনি কোন কাজ ফেলে রাখেন না, তাহলে মাহমুদুর রহমান জনির নিপীড়নের বিষয়টি কেন এখনও বিচারহীনভাবে পড়ে আছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান হিসেবে উপাচার্য তাকে সাময়িক বহিষ্কার করতে পারতেন। এমনকি অনান্য সময় তা হয়েছেও, কিন্তু শিক্ষক জনির ক্ষেত্রে তা হচ্ছে না। আজকে যে সিন্ডিকেট হওয়ার কথা ছিল সেখানেও মাহমুদুর রহমান জনিকে নিয়ে কোন এজেন্ডা ছিল না। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য চাইলে কোন সিন্ডিকেট ছাড়াই নিজ ক্ষমতা বলে তাকে সাময়িক বহিষ্কার করতে পারেন। আমরা চাই আগামী সিন্ডিকেটের প্রথম এজেন্ডা থাকবে জনিকে নিয়ে। আমরা দাবি করছি বর্তমান ঘটনাসহ জনির ইস্যুটিরও যথাযত বিচার হবে।

সমাবেশে ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং সংবাদ কর্মীরা এখনও জেগে আছেন। বিশ্ববিদয়ালয়ের সকল অরাজকতাকে কঠোর হস্তে দমন করা হবে। জাতির মেধাবী শিক্ষার্থীরা কেন ধর্ষক হয়ে উঠছে তার পিছনের ঘটনাগুলো পর্বেক্ষণ করুণ। যৌন নিপীড়ক এবং ধর্ষকদের শাস্তির আওতায় আনুন।

নিপীড়ন বিরোধী মঞ্চের সদস্য সচিব মাহফুজ ইসলাম মেঘ বলেন, আমাদের আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু একজন ছাত্র দ্বিতীয় বর্ষে এসেও হলে সিট পাচ্ছে না। অথচ হলগুলোতে প্রায় আড়াই হাজার অছাত্র অবস্থান করে আছে, আর এই অছাত্রদের দ্বারাই বেশি অপকর্ম ঘটে। ঘটে ধর্ষণ গুম-খুনের মতো ঘটনাও। ধর্ষক মোস্তাফিজও একজন অছাত্র।

নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সোহাগি সামিয়া বলেন, সারাদেশে যৌন- নিপীড়নের ঘটনা ঘটে, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এসব ঘটনায় ব্যাতিক্রম হতে পারেনি, এটা খুবই লজ্জাজনক! তবে জাহাঙ্গীরনগর এসবের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলতে পারে যা অন্য কোথাও এত সহজে দানা বাঁধে না। এসব অপকর্মে বিরুদ্ধে আমরা শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এক পায়ে দাঁড়িয়ে আছি। এসকল ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন অব্যাহত রাখবো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page