ক্যাম্পাস

জাবি শিক্ষক শাহাদাতের নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মো. শাহাদাত হোসেনের ‘হাজিমেমাশোও’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের একটি কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সুব্রত বনিকের সঞ্চালনায় বইটির লেখক অধ্যাপক মো. শাহাদাত হোসেন বলেন, ‘একটি দেশকে জানতে হলে আগে সেই দেশের মানুষকে এবং তাদের শিক্ষা-সংস্কৃতির সূক্ষ্মতাকে জানতে হয়। এটি সেই দেশের জনগণের হৃদয়ে এক গভীর অভিযাত্রাও। হাজিমেমাশোও এসব ধারণার সারমর্মের মধ্যে-ই উদ্ভাসিত একটি মর্মস্পর্শী কাহিনি, যা জাপান নামক একটি ভূখণ্ডের আত্মাকে প্রকাশ করার চেষ্টা করেছে। প্রকৃত শিক্ষা- জ্ঞান, সংস্কৃতি, সততা, মূল্যবোধ এবং দায়িত্বের গভীর বোধের পবিত্র সংমিশ্রণ। জাপানে আমার প্রবাসী অভিযাত্রার অনেক অন্তরঙ্গ ঘটনাপঞ্জি এবং জীবনোপলব্ধির মর্মবাণী রয়েছে এই বইয়ে, যা জাপানের মানুষের সাথে আমার সামাজিক যোগাযোগের মিথোস্ক্রিয়ার চিত্রপটের সাথে জড়িত।’

বইটির প্রকাশক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের শিক্ষক মুশতাক ইবনে আয়ুব বলেন, ‘জাপানের কাহিনি নিয়ে অনেক লেখক লিখেছেন, কিন্তু হাজিমেমাশোও বইয়ে শাহাদাত স্যার স্যার ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি থেকে কাহিনি ফুঠিয়ে তুলেছেন। শাহাদাত স্যারের লেখার একটি নিজস্ব স্টাইল আছে। আমি লেখকদের জনপ্রিয় লেখক আর গুরুত্বপূর্ণ লেখক হিসেবে ভাগ করি। সমকালীন সময়ে শাহাদাত স্যার একজন গুরুত্বপূর্ণ লেখক বলে আমি মনে করি।’

নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মানস চৌধুরী বলেন, ‘শাহাদাত হোসেনের লেখা বইটি তরুণদের জন্য দেশপ্রেমের এক বিরল উদাহরণ। বিজ্ঞান চর্চার পাশাপাশি বাংলা ভাষাতেও পারদর্শী হতে হবে। রচনা করার প্রতিভা জন্মগতভাবে সকলেই নিয়ে আসে কিন্তু সময়ের সাথে সাথে সেই প্রতিভা অনেকেই হারিয়ে ফেলে। আমরা আমাদের এই সহকর্মীকে এবং শিক্ষককে যাতে হারিয়ে না ফেলি সে চেষ্টা আমাদের করতে হবে। আমি এই বইয়ের সাফল্য হিসেবে পাঠক প্রিয়তা আশা করছি।’

জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক নুহু আলম বলেন, ‘শাহাদাত হোসেনের ভালো পাবলিকেশন, জার্নাল ও রিসার্চ পেপার আছে, তার পাশাপাশি বাংলা সাহিত্যে তার লেখা কিছু বই রয়েছে। এ বইগুলা তরুণ সমাজের কাছে খুবই প্রিয় এবং তরুণদের দেশপ্রেমে উৎসাহিত করবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ সাজ্জাদ আহসান, ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক সাকিবা ইয়াসমিন, প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সোহেল আহমেদ, অধ্যাপক মোহা. সাবির হোসেন, অধ্যাপক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান, অধ্যাপক তাসলিমা নাহার ও অধ্যাপক বোরহান উদ্দিন প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page