ক্যাম্পাসলিড নিউজ

রক্তের বিনিময়ে জন্মেছিলো বর্ণমালা

ইবি প্রতিনিধি:

‘দাম দিয়ে কিনেছি বাংলা/কারোর দানে পাওয়া নয়/দাম দিছি প্রাণ লক্ষ কোটি/জানা আছে জগৎময়।’ লাখ লাখ যোদ্ধার প্রাণের দামে কিনতে হয়েছে বাংলাদেশ।

শুধু মাতৃভূমি নয় বরং মাতৃভূমির পূর্বে মাতৃভাষাকে আপন করে পেতে এদেশের পূণ্যভূমিতে ঝড়েছিলো শহীদদের রক্ত। অসংখ্য শহীদের রক্তের বিনিময়ে বাংলা হয়েছিলো এদেশের মাতৃভাষা। শুধু রক্তই নয় বিলিয়ে দিতে হয়েছিলো সম্ভ্রম, ছিলো দীর্ঘ সময়ের তিতিক্ষা। চরম আন্দোলনের মাথায় অপতিরোধ্য বাঙালিকে আর দমাতে পারেনি শাসক গোষ্ঠী, অবশেষে এই পূন্যভূমির বাগানে কৃষ্ণচূড়ার ন্যায় ফুটে রয়েছিলো অ,আ,ক,খ।

ভাষাশহীদদের মহান ত্যাগের কথা স্মরণে ১৯৫৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথমবারের মতো পালন করা হয় শহীদ দিবস।

১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন পাকিস্তান সরকার বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা হিসেবে স্বীকৃতি না দেওয়ায় এবং পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা হিসেবে উর্দুকে চাপিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদে ঢাকার ছাত্র ও সাধারণ জনগণ উত্তাল হয় এবং রাস্তায় নেমে আসে।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলাকে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবিতে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাস থেকে ১৪৪ ধারা ভেঙে ছাত্র-ছাত্রীরা মিছিল বের করে। মিছিলে পুলিশের এলোপাতাড়ি গুলিতে নিহত হন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারসহ আরও কয়েকজন মাটির বীর সন্তান।

এই দিনটির প্রতি শ্রদ্ধা এবং ভাষা শহীদদের স্মরণে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারকেও রঙ-তুলির আঁচড়ে আলপনায় সাজিয়ে তুলছেন ইবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

মাতৃভাষার অধিকার আদায়ের গৌরবময় স্মৃতি, সেই সঙ্গে বিদীর্ণ শোকের রক্তঝরা দিন একুশে ফেব্রুয়ারিতে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে বুধবার শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক ভাষা দিবসের প্রথম প্রহর থেকে শুরু করে দিনভর শহীদ মিনার মুখরিত থাকবে মানুষের ভিড়ে। শ্রদ্ধা আর ভালবাসার ফুলে ভরে উঠবে স্মৃতির মিনার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page