ক্যাম্পাসলিড নিউজ

বিভাগীয় প্রধানের অব্যাহতি চায় শিক্ষার্থীরা, বিভাগে ঝুলছে তালা

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মানব সম্পদ ব্যাবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক সাজন সাহা কর্তৃক বিভাগে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদে তৃতীয় দিনের মত চলছে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন। বিভাগে ঝুলছে তালা, বিভাগীয় প্রধানকে অপসারনের দাবি শিক্ষার্থীদের।

বোধবার (৬ মার্চ) সকাল ১০ টায় মানব সম্পদ ব্যাবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থীরা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিয়াশীল সংগঠন “উইমেন পিস ক্যাফে” এবং “সেইভ দ্যা ইউথ” এর সমন্বিত উদ্যোগে বিবিএ অনুষদ ভবনের সামনে মানব বন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মানব বন্ধনে ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক সাজন সাহা এবং বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে দ্রুত বিচার করে শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানায় অংশগ্রহণকারীরা।

মানব বন্ধনের পর ঘটনার সুষ্ঠ বিচার নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ক্লাস- পরিক্ষা বর্জনের ঘোসনা দিয়ে বিভাগে তালা ঝুলিয়ে দেয় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের অংশ হিসেবে বিভাগের নেমপ্লেটে কালো কাপড় দিয়ে ঢেঁকে দেয় শিক্ষার্থীরা। এক পর্যায়ে ঘটনায় অভিযুক্ত দুই শিক্ষক সাজন সাহা ও বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্র এর অফিসের নেমপ্লেট ভেঙ্গে আগুনে পুঁড়িয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

এ সময় বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষককে দীর্ঘক্ষণ অফিসেই আটকে রাখে শিক্ষার্থীরা। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের উপস্থিতিতে বিভাগ ত্যাগ করে এসব শিক্ষকেরা।

বিভাগে তালা ঝুলিয়ে যৌন হয়রানির ঘটনায় আশ্রয়দাতা হিসেবে অভিযুক্ত বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে অবিলম্বে বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য বিভাগের উপাচার্য বরাবর লিখিত আবেদন জমা দেয় বিভাগের শিক্ষার্থীরা। আবেদন পত্রে বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে ঘটনার অন্যতম অভিযুক্ত ও মদদদাতা হিসেবে উল্লেখ করে সুষ্ঠ তদন্ত ও বিভাগের শিক্ষার্থীদের স্বার্থে দ্রুত বিভাগীয় প্রধানের পদ থেকে অপসারন করার আবেদন জানায় শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনের অংশ হিসেবে সন্ধায় মোমবাতি প্রজ্বলন ও মৌন মিছিলের কর্মসূচি ঘোসনা করেছে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page