রাজনীতি

মালয়েশিয়া ও তুরস্ক সফর শেষে বিএসপি চেয়ারম্যানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

‘বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি (বিএসপি)’ এর চেয়ারম্যান ও ‘ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সুফি স্টাডিজ’-এর প্রতিষ্ঠাতা হযরত শাহসুফি ড. সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী মাইজভাণ্ডারী মালয়েশিয়া ও তুরস্কের কয়েকটি আন্তর্জাতিক সফর শেষ করে দেশে ফিরে এসেছেন।

বুধবার (১ মে) রাত ১টার সময় তাঁকে বহনকারী একটি বিমান রাজধানীর হযরত শাহ্ জালাল (রহঃ) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান। এ সময় তাঁকে ফুলে ফুলে শুভেচ্ছা জানিয়ে ব্যাপক সংবর্ধিত করেন তাঁর ভক্ত আশেকানসহ রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক বিভিন্ন দলীয় নেতাকর্মীরা।

জ্যোতির্ময় আলোর দিশারীরা ভালোবাসার শিক্ষা দিয়ে জাতিকে আলোকিত করেছেন উল্লেখ করে এ সময় শাহসুফি সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল হাসানী বলেছেন, ‘বর্তমান বিশ্বের মানবাধিকার সংকটের পটভূমিতে সমস্যা সমাধানে সুফিদের আরও বেশি ভূমিকা রাখতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘মহানবী (সা.) এর শিক্ষা অনুসারে মানবজাতির নাম ধর্ম বা জাতি জিজ্ঞাসা না করে সবাইকে নিঃশর্ত ভালবাসার সাথে সেবা করার শিক্ষা হৃদয়ে ধারণ করতে হবে।’

সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভান্ডারী আরও বলেন, ‘মহানবী হলেন আমাদের অনুসরণ করার জন্য সর্বোত্তম আদর্শ এবং কিভাবে ইসলাম আমাদেরকে সকলের সাথে সম্প্রীতির সঙ্গে অবস্থান করতে উৎসাহিত করে তা অবশ্যই আমাদের জানতে হবে।’

বিএসপি চেয়ারম্যান বলেন, ‘নবীজীর আদর্শ অনুযায়ী, কেউ কারো শান্তি বিঘ্নিত করলে সে মুসলমান হবে না, কারণ ইসলাম বিশ্বাসী-অবিশ্বাসী ভেদাভেদ না করে রহমত, শান্তি, দয়া ও অনুগ্রহের কথা বলে। আর সুফিরাই সে আদর্শের ধারক বাহক।’

বর্তমান এই বিংশ- একবিংশ শতাব্দীতে নবীজীর সত্যিকারের শিক্ষা হৃদয়ে ধারণ করতে হলে সুফিদের দারস্থ হওয়ার বিকল্প নেই বলেও মন্তব্য করেন শাহসুফি সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল মাইজভান্ডারী।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ সময় বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি (বিএসপি), আঞ্জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া, মইনীয়া যুব ফোরাম ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা সহ মাইজভান্ডার দরবারের ভক্ত আশেকানরা উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page