ক্যাম্পাসলিড নিউজ

জাবির ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে এক যুবক আটক

জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০২২-২৩ সেশনের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের কাছে আটক হয়েছেন সোহেল রানা (২৮) নামের এক যুবক।

সোমবার (১৯ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ‘বি’ ইউনিটের ৩য় শিফটের পরীক্ষা চলাকালে তাকে আটক করা হয়।

সোহেল রানা নিজেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী হিসেবে দাবি করেছেন। তার বাড়ি রাজশাহী জেলার বাগমারা উপজেলায়। সোহেলের পিতার নাম সোহাগ আলি ও মাতার নাম আমেনা বেগম।

নাজমুল হক নামের এক শিক্ষার্থীর হয়ে ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে ‘বি’ ইউনিট ও গতকালের ‘সি’ ইউনিটেও পরীক্ষা দিয়েছেন বলে জানান আটকৃত ব্যক্তি।

তিনি বলেন, ‘আমি এর আগে কখনও কোথাও প্রক্সি দেইনি। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশুনা শেষ করে চাকরির প্রস্তুতি নিচ্ছি। ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে আমার এলাকার এক স্থানীয় বড় ভাই ইমরান ইমনের মাধ্যমে এখানে এসেছি। ইমরান ইমন নাজমুল হকের ফুফাতো ভাই।’

এ বিষয়ে প্রক্টর অফিস থেকে প্রাপ্ত ইমরান ইমনের নাম্বারে কল করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, ‘বি’ ইউনিটের ৩য় শিফটের পরীক্ষার সময় তাকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি পরীক্ষায় জালিয়াতির কথা স্বীকার করেন। শুধু তাই নয় গতকাল ‘সি’ ইউনিটেও একই শিক্ষার্থীর জন্য প্রক্সি দেওয়ার কথা স্বীকার করেছে। আমরা ইতিমধ্যে সেন্ট্রাল ভর্তি কমিটিকে জানিয়ে ‘সি’ ইউনিটের উত্তরপত্রটি বাতিল করে দিয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাকে এখন আমাদের জিম্মায় রাখা হয়েছে, ভ্রাম্যমাণ আদালতকে জানিয়েছি। বিকেল ৫টায় তাদের আসার কথা রয়েছে।তারা এসে অপরাধের মাত্রা বিবেচনা করে অভিযুক্তকে শাস্তি দিবেন।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page